আন্তর্জাতিক

বাসভবনে ড্রোন হামলার পরে সকলকে শান্ত থাকতে ইরাকের প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান

ইরাকের বাগদাদে প্রধানমন্ত্রী মোস্তফা আল-খাদেমির বাসভবনে ড্রোন হামলা চালিয়ে তাকে হত্যাচেষ্টা করা হয়েছে। আজ ভোরে এ হামলা চালানো হয়। এতে অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছেন তিনি। তবে এ হামলায় গুরুতরভাবে আহত হয়েছে তার ৬ সুরক্ষা কর্মী। হামলার পরে কাদিমি বলেছেন, তিনি অক্ষত রয়েছেন এবং সকলকে ‘শান্তি ও সংযম’ বজায় রাখার আহ্বান জানিয়েছেন।

বাগদাদের গ্রীন জোনে কাদিমির বাসভবন লক্ষ্য করে এই হামলা চালানো হয়, কাদিমি ২০২০ সালের মে থেকে প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্বে রয়েছেন এবং পরবর্তী সরকারের নেতৃত্ব কে দেবেন এ নিয়ে রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে দ্বন্দ্ব চলছে।

কাদিমির অফিস এটি একটি ‘ব্যর্থ হত্যা প্রচেষ্টা’ বলে অভিহিত করার পরে কাদিমি টুইটারে লিখেছেন, আমি ভালো আছি, আমি অল্লাহর প্রশংসা করছি এবং ইরাকের ভালোর জন্য আমি সকলকে ‘শান্তি ও সংযম’ বজায় রাখার আহ্বান জানাই।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র দ্রুত এ হামলার নিন্দা জানিয়েছে এবং প্রধানমন্ত্রী অক্ষত থাকার খবরে স্বস্তি প্রকাশ করেছে। মার্কিন পররাষ্ট্র বিভাগের মুখপাত্র নেড প্রাইস এক বিবৃতিতে বলেছেন, দৃশত এটি একটি সন্ত্রাসবাদী হামলা, ইরাক রাষ্ট্রের প্রাণকেন্দ্র লক্ষ্য করে এ হামলা চালানো হয়।

এতে বলা হয়, ইরাকের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব সমুন্নত রাখতে আমরা ইরাকি নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ অব্যাহত রেখেছি। এই হামলার তদন্তে আমরা সহযোগিতার প্রস্তাব দিয়েছি।

গ্রীন জোন ঘিরে বিপুল নিরাপত্তা সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে, এই এলাকায় যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস রয়েছে। গ্রীন জোন লক্ষ্য করে প্রায়ই রকেট হামলা চালানো হয়। ৩১ অক্টোবর পাশের জেলা মানসুরে ৩টি রকেট হামলা চালানো হয়, এতে কেউ হতাহত হয়নি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button